২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: shuddhobarta24@

আমার সম্পর্কে : This author may not interusted to share anything with others
প্রচ্ছদ বিভাগ সিলেট

সুনামগঞ্জের জাদুকাটা নদী পথ দিয়ে ভারত থেকে পণ্য আমদানি চালুর লক্ষ্যে :কাস্টমস কমিশনারের সাথে সিলেট চেম্বার নেতৃবৃন্দের সাক্ষাৎ

আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্যে বিরাজমান সমস্যাবলী নিয়ে ০৫ জানুয়ারি ২০২২ইং, বুধবার, বিকাল ০৩:৩০ ঘটিকায় কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, সিলেট এর কমিশনার মোহাম্মদ আহসানুল হক এর সাথে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র নেতৃবৃন্দের এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কাস্টমস কমিশনারের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় সিলেট চেম্বারের সভাপতি তাহমিন আহমদ সুনামগঞ্জের আমদানিকারকগণের আবেদনের প্রেক্ষিতে ছাতক স্থল শুল্ক স্টেশনের আওতায় তাহিরপুর উপজেলার জাদুকাটা নদী দিয়ে ভারতের মেঘালয় থেকে পাথর, কয়লা ইত্যাদি আমদানির সুযোগ প্রদানের অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, উক্ত রুট দিয়ে পণ্য আমদানি চালু হলে সরকার ও আমদানিরকারকগণ উভয়েই লাভবান হবেন। এছাড়াও তিনি তামাবিলের বিপরীতে ডাউকি এলসি স্টেশনে ওয়েট মেশিন স্থাপনের ব্যবস্থা গ্রহণ, শেওলা স্থলবন্দরের নো ম্যান্স ল্যান্ড হতে কমপক্ষে ৫ কিলোমিটার দূরত্বে ওয়েট মেশিন স্থাপন, তামাবিল স্থলবন্দর দিয়ে কাঁচামাল আমদানি সহ বিভিন্ন প্রস্তাব তুলে ধরেন।

কাস্টমস কমিশনার মোহাম্মদ আহসানুল হক জানান, জাদুকাটা নদী রুট দিয়ে কয়লা, পাথর ইত্যাদি আমদানি চালুর লক্ষ্যে আগামী ১৭ তারিখে কাস্টমস বিভাগের একটি পরিদর্শক টিম এলাকাটি পরিদর্শন করবেন। উক্ত রুট দিয়ে ভারত থেকে পণ্য আমদানির সম্ভাব্যতা নিরূপন সাপেক্ষে ৩ মাসের জন্য একটি পাইলট প্রজেক্ট গ্রহণের পরিকল্পনা রয়েছে বলে তিনি জানান। এছাড়াও তিনি ভারতের ডাউকি ও শেওলা স্থলবন্দরে ওয়েট মেশিন বসানোর ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন বলে আশ্বস্ত করেন। তিনি সিলেট চেম্বারের নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত পরিচালনা পর্ষদকে অভিনন্দন জানান।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন কাস্টম্স, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট এর অতিরিক্ত কমিশনার মুহাম্মদ রাশেদুল আলম, সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য নজির হোসেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্সের সিনিয়র সহ সভাপতি ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ, পরিচালক মুজিবুর রহমান মিন্টু, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি চন্দন সাহা, সুনামগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক শামসুল হক, খসরুল আলম ও কাস্টম্স বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ।

Leave a comment