৫ই জুন, ২০২০ ইং , ২২শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: আশফাকুর রহমান

আমার সম্পর্কে : বার্তা বিভাগ প্রধান
প্রচ্ছদ বিভাগ সিলেট

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের করোনার হানা, ৮৩ হাজতি ও ২৪ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে কোয়ারেন্টিনে

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারে হত্যা মামলার এক হাজতি করোনাক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পর তিনি যে ওয়ার্ডে থাকতেন, সেটি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে হাজতি আছেন ৮৩ জন। এর বাইরে কারা কর্মকর্তা, কারা চিকিৎসক, কারারক্ষীসহ ২৪ জনকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। ফলে কারাগারে তিনি যে ওয়ার্ডে ছিলেন, সে ওয়ার্ডের ৮৩ হাজতিকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মুজিবুর রহমান। তিনি নিজেই কোয়ারেন্টিনে আছেন বলে জানিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, কারাগারের অন্য কারো শরীরের নমুনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি। পরিস্থিতি বুঝে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

কারা সূত্রে জানা গেছে, আহমদ হোসেন (৫৫) কানাইঘাট উপজেলার দক্ষিণ বাণীগ্রাম ইউনিয়নের ঘড়াই গ্রামের বাসিন্দা। একটি হত্যা মামলায় গত ৫ মার্চ তিনি কারাগারে যান। এরপর গত ৮ মে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে পাঠানো হয় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। আহমদ হোসেনের মধ্যে করোনার উপসর্গ থাকায় তাকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। গত ৯ মে তার নমুনা পরীক্ষা করা হয়, গতকাল সোমবার ফলাফলে পজিটিভ আসে। কিন্তু এর আগেই গত রবিবার তিনি মারা যান।

Leave a comment