৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: বিপ্র দাস বিশু বিত্রম

আমার সম্পর্কে : নির্বাহী সম্পাদক
প্রচ্ছদ বিভাগ বাংলাদেশ

সালিশে তরুনীর মাথা ন্যাড়া করার ঘটনায় মামলা: গ্রেফতার ৩

নিউজ ডেস্ক: নীলফামারী জেলা সদরের রামনগর ইউনিয়নের চাঁদেরহাট কলেজপাড়া গ্রামে গ্রাম্য সালিশে প্রভাবশালীরা এক তরুণীর মাথার চুল জোরপূর্বক ন্যাড়া করে দিয়ে শ্লীলতাহানীর করার ঘটনায় তিনব্যাক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার সকালে তাদের নিজ নিজ বাড়ি হতে গ্রেফতার করা হয়। এরা হলো উক্ত গ্রামের প্রাণ কুমার রায়ের ছেলে সদানন্দ রায় (৩০), সুরেন্দ্র নাথ রায়ের ছেলে দীনবন্ধু রায় (৫০) ও সতিশ চন্দ্র রায়ের ছেলে পুষ্প কুমার রায় (২৮)। এই তিনজন ওই তরুনীর মাথা ন্যাড়া করেছিল।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে নীলফামারী থানার ওসি বাবুল আকতার  জানান এ ব্যাপারে ওই তরুনীর বিধবা মা ও তরুনীর অভিযোগে বুধবার মামলা দায়ের করা হয়েছে (মামলা নম্বর -১২)। মামলায় উক্ত তিনজন সহ অজ্ঞাত আরো ১০ জনকে আসামী করা হয়েছে।
প্রকাশ থাকে যে ওই তরুনী প্রেমের সর্ম্পক ধরে স্বেচ্ছায় ধর্মান্তরীত হয়ে গত ১ জুলাই নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে ইসলাম ধর্মের জেলা সদরের দুহুলী গ্রামের আব্দুল সাক্তারের ছেলে অটোচালক রবিউল ইসলামকে বিয়ে করে শ্বশুড় বাড়ি গিয়ে বসবাস করছিল।

এ অবস্থায় তরুনীর গ্রামের প্রভাবশালীরা সোমবার রাতে রবিউলের গ্রামে সালিশ বৈঠক করে ওই তরুনীকে তার স্বামীর বাড়ি হতে নিজ বাড়িতে ফিরিয়ে আনে।

এ সময় প্রভাবশালীরা তরুনীকে ঘরে তোলার আগে হিন্দু শাস্ত্রের দোহাই তুলেওই তরুণীর শুদ্ধির জন্য মাথার চুল ন্যাড়া করে প্রায়শ্চিত্ত করার দাবি তুলে।এতে ওই তরুনী প্রতিবাদ করেও রক্ষা পায়নি।

এ অবস্থায় মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৪টায় প্রভাবশালীদের হুকুমে উক্ত গ্রেফতারকৃত তিনজন ওই তরুনীকে চেপে ধরে তরুনীর মাথার চুল ন্যাড়া করে দেয়। এ সময় তরুনী বাধা দিলে গেলে তার শ্লীলতাহানী ঘটানো হয় বলে ওই তরুনী অভিযোগ করে।

Leave a comment