৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: আশফাকুর রহমান

আমার সম্পর্কে : বার্তা বিভাগ প্রধান
প্রচ্ছদ বিভাগ খেলাধুলা

রেফারির কর্মকাণ্ড নিয়ে কিছু বলার নেই নেইমার

ডেস্ক নিউজ: ১৯৯৮ সালের পর বিশ্বকাপে এক ম্যাচে সবচেয়ে বেশিবার ফাউলের শিকার হয়েছেন নেইমার। ওইবার ১১ বার চ্যালেঞ্জ করে ইংল্যান্ডের অ্যালান শিয়ারারকে ভূপাতিত করেছিল তিউনিসিয়া। রবিবার ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডকে সুইজারল্যান্ড ফাউল করেছে ১০ বার। খেলোয়াড়দের নিরাপত্তায় এটা রেফারির ব্যর্থতার প্রতিফলন বলেছেন নেইমার। রোস্তভ অ্যারেনায় এদিন ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও দ্বিতীয়ার্ধে একটি গোল হজম করে। এই গোল নিয়েও প্রশ্ন আছে নেইমারের। তার মতে ডিবক্সে মিরান্দাকে ফাউল করে লক্ষ্যভেদ করেছেন স্টিভেন জুবের। সুইসদের সমতা ফেরানো গোলটি নিয়ে সন্দিহান তিতের কথায় সায় দিলেন বিশ্বের সবচেয়ে দামি ফুটবলার, ‘আমি মনে করি এটা ফাউল ছিল। রিপ্লের মুহূর্তটা যখন দেখবেন, সবাই গোল উদযাপন করছে। আমি সেটা আবারও দেখেছি। কিন্তু এটা নিয়ে আমার কথা বলা ঠিক নয়। এনিয়ে কাজ করার জন্য চারজন পেশাদার ব্যক্তি আছেন। তাদের দায়িত্বটা পালন করতে হবে।’ এই ড্র ব্রাজিলের প্রাপ্য নয় বললেন নেইমার, ‘এই ড্র আমাদের প্রাপ্য নয়। কিন্তু আমরা আরও উন্নতি করতে পারি, আরও ভালো খেলার সামর্থ্য আছে। কিন্তু এই ম্যাচ প্রমাণ করল কাজটা সহজ হবে না। সোচিতে পরের ম্যাচে পুরো দল নিয়ে আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে।’ ফেব্রুয়ারিতে গোড়ালির চোট নিয়ে ছিটকে পড়ার পর প্রথমবার প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন নেইমার। প্রথম ম্যাচেই এতবার ফাউলের শিকার হওয়ার পরও দৃঢ় প্রত্যয়ী পিএসজি ফরোয়ার্ড, ‘আমাকে আঘাত করা হয়েছে এবং ফেলে দিয়েছে। কিন্তু দুশ্চিন্তার কিছু নেই।’ রেফারির কর্মকাণ্ড নিয়ে নেইমার বলেছেন, ‘এটা নিয়ে আমার কিছু বলার নেই। আমাকে যেটা করতে হবে সেটা হলো খেলতে হবে। বাকি সব দেখবে রেফারি। আমি মনে করি এটা স্বাভাবিক ব্যাপার (নিয়মিত ফাউল হওয়া)।’

Leave a comment