৫ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: আশফাকুর রহমান

আমার সম্পর্কে : বার্তা বিভাগ প্রধান
প্রচ্ছদ বিভাগ খেলাধুলা

ফিটনেস ধরে রাখার চেষ্টায় খুশি ফিজিও

ডেস্ক নিউজ: ফিটনেস ক্যাম্পের জন্য ঘোষিত ৩১ জনের মধ্যে কেবল সাকিব আল হাসান ও মোস্তাফিজুর রহমান এদিন ছিলেন না। আইপিএলে খেলছেন তারা, প্রাথমিক দলের বাকি ২৯ জন সকাল পৌনে ৯টায় ভিল্লাভারায়েনের কাছে রিপোর্ট করেন। ২৮ মে পর্যন্ত হতে যাওয়া এই ক্যাম্পের প্রথম দিন ফিটনেস নিয়েই কাজ হয়েছে। বিপ টেস্ট দিয়েই শেষ হয় এদিনের অনুশীলন। প্রথম দিন বিপ টেস্টে উতরে গেছেন সব ক্রিকেটার। সবচেয়ে ভালো করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১২.৫ পয়েন্ট নিয়ে তিনি সবার উপরে। তার পরেই আছেন মুশফিকুর রহিম, সৌম্য সরকার ও সাব্বির রহমান। তবে কম স্কোর করেছেন তামিম ইকবাল, রুবেল হোসেন ও আব্দুর রাজ্জাক। বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ শেষ হওয়ার পর প্রায় এক মাসের বিশ্রাম পেয়েছিলেন ক্রিকেটাররা। তাই বলে ঘুরে বেড়াননি তারা। এই সময়ে ব্যক্তিগত উদ্যোগে অনেকে ফিটনেস নিয়ে কাজ করেছেন। ক্রিকেটারদের এমন উদ্যোগে দারুণ খুশি ভিল্লাভারায়েন, ‘ক্রিকেটারদের মানসিকতায় বিশাল পরিবর্তন এসেছে। আজকে সকালেই আমি ছেলেদের বলছিলাম, দারুণ চারটি বছর কাটল। এবারই যেমন কলম্বোতে ছুটি কাটানোর সময় জানতে পারলাম, তামিম নিজের তাগিদেই ফিটনেস ট্রেনিং করছে। আরও অনেকেই নিজে থেকে এসব করছে। এটা আমাকে দারুণ তৃপ্তি দিয়েছে।’ ক্রিকেটারদের দায়িত্বশীলতায় মুগ্ধ তিনি, ‘আমি যখন এখানে এসেছিলাম, ঠিক এমনটাই চেয়েছিলাম যেন মূল দায়িত্ব ক্রিকেটাররাই নেয়। নিজেদের তাগিদে ফিটনেস ট্রেনিংয়ে অংশ নিতে হবে। ছেলেদের মানসিকতার উন্নতিতে আমি দারুণ খুশি।’

সম্প্রতি ফুটবল খেলতে গিয়ে নাসির ও মুশফিক ইনজুরিতে পড়েন। মুশফিকের ইনজুরি গুরুতর না হলেও নাসির লম্বা সময়ের জন্য ছিটকে গেছেন। ক্রিকেট মাঠে না খেলেও এমন ইনজুরি নিয়ে ভিল্লাভারায়েন বলেছেন, ‘যখন আমি থাকি, তখন নির্দিষ্ট একটি গাইডলাইন ঠিক করে দেই। এজন্য গত চার বছরে জাতীয় দল ফুটবল খেলার সময় বড় কোনও ইনজুরিতে পড়েনি। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে বা অন্য জায়গায় তো আমি দেখভাল করতে পারব না। দায়িত্বটা ক্রিকেটারদের নিজেদেরই নিতে হবে।’

Leave a comment