২০শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: আশফাকুর রহমান

আমার সম্পর্কে : বার্তা বিভাগ প্রধান
প্রচ্ছদ বিভাগ খেলাধুলা

বাকীর রৌপ্যে পদক তালিকায় বাংলাদেশ

ডেস্ক নিউজ : ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে আবার রৌপ্যপদক জিতলেন বাংলাদেশের আবদুল্লাহ হেল বাকী। অবশ্য অল্পের জন্য স্বর্ণপদক হাতছাড়া হয়েছে তার। পদক জয়ের পর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম নিজের ফেসবুক পেজে বাকী লেখেন ‘আল্লাহর কাছে শুকরিয়া। আমার সব সমর্থনকারীকে ধন্যবাদ। শেষ শটের জন্য দুঃখিত।’ ২৪৫ স্কোর গড়ে স্বর্ণপদক জিতে নেন স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার ড্যান স্যাম্পসন। বাকীর স্কোর ছিল ২৪৪.৭। ব্রোঞ্জ পদক পাওয়া ভারতের রবি কুমারের স্কোর ২২৪.১।

স্বর্ণপদক জিতলে গোল্ডকোস্টের বেলমন্ট শুটিং রেঞ্জে বেজে উঠত বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত। কিন্তু তা হলো না। তবে বাংলাদেশের লাল-সবুজের পতাকা উড়িয়েছেন বাকী। কমনওয়েলথ গেমসে বাকীর হাত ধরে আসা প্রথম পদকে আনন্দের উপলক্ষ পেয়েছে বাংলাদেশ। প্রশংসার বৃষ্টিতে সিক্ত হচ্ছেন। চার বছর আগে ২০১৪ সালে স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে ১০ মিটার এয়ার রাইফেলে রৌপ্যপদক জয় করেছিলেন বাকী। শুটিংকে ঘিরেই পদক জয়ের স্বপ্ন ছিল বাংলাদেশের। ভারোত্তোলন ও সাঁতারে হতাশ হলেও শুটিং ইভেন্টের শুরুতেই সাফল্য পেল বাংলাদেশ। বাকীর রৌপ্যপদক জয়ে সন্তুষ্ট বাংলাদেশের শুটিংয়ের কর্মকর্তারা। আগামী ১০ এপ্রিল ৫০ মিটার এয়ার রাইফেল ইভেন্টে আবার শুটিং রেঞ্জে দাঁড়াবেন বাকী।

১৯৯০ সালে অনুষ্ঠিত অকল্যান্ড কমনওয়েলথ গেমসে এয়ার রাইফেল থেকে বাংলাদেশকে প্রথমবারের মতো স্বর্ণপদক এনে দিয়েছিলেন আতিকুর রহমান ও আবদুস সাত্তার নিনি। এই গেমসে বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম পদক জয়ের রেকর্ড এটি। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০২ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে অনুষ্ঠিত গেমসে এয়ার রাইফেল ইভেন্ট থেকে লাল-সবুজদের শিবিরে স্বর্ণপদক এনে দেন আসিফ হোসেন। ২০০৬ সালে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত গেমসে বাংলাদেশ দলগতভাবে রৌপ্য এবং ২০১০ সালে ভারতের নয়াদিল্লিতে অনুষ্ঠিত গেমসে দলগত ব্রোঞ্জ পদক জয় করে। এর পর শুটিংয়ে সাফল্যের গল্প বাকীকে ঘিরেই।

 

Leave a comment