১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: আশফাকুর রহমান

আমার সম্পর্কে : বার্তা বিভাগ প্রধান
প্রচ্ছদ বিভাগ বাংলাদেশ

ধ্রুবতারা উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া নতুন ড্যাশ ৮-৪০০ উড়োজাহাজটি রবিবার (২৭ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন। বেলা ১১টায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ভিভিআইপি টার্মিনালে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান হবে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুষ্ঠানে যুক্ত থাকবেন।
এর আগে ২৪ নভেম্বর দেশে আসে বিমানটি। এটিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত করা হয়। বিমানটির নাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাখেন ‘ধ্রুবতারা’। এ উড়োজাহাজ যুক্ত হওয়ার মধ্য দিয়ে বিমান বহরে উড়োজাহাজের সংখ্যা এখন ১৯।

বিমান বাংলাদেশ জানিয়েছে, বাংলাদেশ ও কানাডা সরকারের মধ্যে জি-টু-জি ভিত্তিতে ক্রয় করা তিনটি উড়োজাহাজের মধ্যে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ড্যাশ ৮-৪০০ উড়োজাহাজ দুটি যথাক্রমে জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি ২০২১-এ বিমান বহরে যুক্ত হবে। নতুন উড়োজাহাজ বহরে সংযোজনের মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ ও স্বল্প দূরত্বের আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক গন্তব্যগুলোয় বিমান-এর সাপ্তাহিক ফ্রিকোয়েন্সি বৃদ্ধি করা হবে। কানাডার নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডি হ্যাভিল্যান্ড নির্মিত, ৭৪টি আসন বিশিষ্ট ড্যাশ ৮-৪০০ উড়োজাহাজটি পরিবেশবান্ধব এবং অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ। উড়োজাহাজটিতে এইচইপিএ (হাই-ইফিসেন্সি পার্টিকুলেট এয়ার) ফিল্টার প্রযুক্তি রয়েছে। যা মাত্র ৪ মিনিটেই ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাসসহ অন্যান্য জীবাণু ধ্বংসের মাধ্যমে উড়োজাহাজের অভ্যন্তরের বাতাসকে করে সম্পূর্ণ বিশুদ্ধ।

বিমানের বহরে রয়েছে চারটি ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার, দুইটি ৭৮৭-৯ ড্রিমলাইনার, চারটি ৭৭৭-৩০০ ইআর, চারটি ৭৭৭-৩০০ ইআর, ছয়টি ৭৩৭-৮০০ এবং তিনটি ড্যাশ আট উড়োজাহাজ। বিমানের তিনটি ড্যাশ উড়োজাহাজ ছাড়া বাকি সবই উড়োজাহাজ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বোয়িংয়ের তৈরি। ১৯টি উড়োজাহাজের মধ্যে ছয়টি উড়োজাহাজ বিভিন্ন মেয়াদে লিজে নেওয়া, বাকিগুলো বিমানের নিজস্ব।

Leave a comment