২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: বিপ্র দাস বিশু বিত্রম

আমার সম্পর্কে : নির্বাহী সম্পাদক
প্রচ্ছদ বিভাগ সিলেট

কমলগঞ্জের ৮ দফা দাবিতে চা শ্রমিক নারী পরিষদের মানবন্ধন

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের শমশেরনগর প্লান্টেশন এলাকার কর্মক্ষেত্রে নারী চা শ্রমিকদের ৮ দফা দাবিতে চা শ্রমিক নারী পরিষদ মানববন্ধন কর্মসূচী পালনসহ সভা করেছে।

রবিবার (৮ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১১টায় শমশেরনগর বাজার চৌমুহনায় মানববন্ধন কর্মসূচী ও সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চা শ্রমিক নারী পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক নারী নেত্রী মেরী রাল্প ও যুগ্ম আহবায়ক মনি গোয়ালার নেতৃত্বে শতাধিক নারী চা শ্রমিক ব্যানার ও ৮ দফা সম্বলিত ফ্যাষ্টুনসহ মানববন্ধনে অংশ নেয়।

মানববন্ধন চলাকালে সভায় অন্যান্যের মাঝে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ চা শ্রমিক ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক রাম ভজন কৈরী, চা শ্রমিক ইউনিয়ন মনু-ধলই ভ্যালির(অঞ্চলের) সাধারন সম্পাদক নির্মল দাশ পাইনকা, মাসিক চা মজদুর পত্রিকার সম্পাদক ও ইউপি সদস্য সীতারাম বীন।

এছাড়া বক্তব্য রাখেন- নারী নেত্রী ইউপি সদস্যা নমিতা সিং, আশা ওড়নাল, মীরা রেলী।

এছাড়া উপস্থিত ছিলেন, সুজা মেমোরিয়াল কলেজের  প্রভাষক মো. জমসেদ আলী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম সালাম প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, প্রতিটি চা সেকশনে (প্লান্টেশন এলাকা) নারীদের জন্য শৌচাগার ও প্রক্ষালণ কক্ষ  ও ওজন ঘর স্থাপণ, নিরিকের অতিরিক্ত উত্তোলিত চা পাতার জন্য দ্বিগুনহারে মজুরি প্রদান, চা বাগানে মদের পাট্টা বন্ধ করা, চা বাগান কার্যালয়ে নিয়োগের ক্ষেত্রে পুরুষের সমপরিমাণ নারী প্রার্থী নিয়োগ দেওয়া, মজুররিসহ মাতৃত্বকালীন ছুটি ৬ মাস দেওয়া, নারী সর্দার ও নারী বাবু নিয়োগ দেওয়া, সরকারী চাকুরি ও উচ্চ শিক্ষায় চা বাগানের মেয়েদের কৌটা প্রদান, প্রতিটি চা বাগান প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শতকরা ষাট ভাগ নারী নিয়োগ প্রদান ও চা শ্রমিকদের ভিটা উচ্ছেদ আইন বাতিলচা শ্রমিক নারীরাই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পাহাড়ি উঁচু নিচু টিলা, এলাকা ও জঙ্গলে রোদে পুড়ে ও বৃষ্টিতে ভিজে কাজ করে।

 

Leave a comment