২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: বিপ্র দাস বিশু বিত্রম

আমার সম্পর্কে : নির্বাহী সম্পাদক
প্রচ্ছদ বিভাগ বাংলাদেশ

যেভাবে জন্ম বিজয়ের গানের

শুদ্ধবার্তাটোয়েন্টফোরডটকম:   এ দেশের আপামর জনগণের লড়াই সংগ্রামেই আমরা স্বাধীন হয়েছি। ওই নয়মাস আমরা মনে-প্রাণে বাঙালি ছিলাম। এক আত্মা এক মন ছিল। কে হিন্দু কে মুসলমান চিন্তা করি নাই। একসাথে খেয়েছি, ঘুমিয়েছি। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর আমাদের মধ্যে ভাগ বাটোয়ারা শুরু হয়ে গেল। পাঁচাত্তরের পর সব ওলটপালট হয়ে গেল। বঙ্গবন্ধুকে স্বীকার করেনি অনেক মুক্তিযোদ্ধা।”

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে দলমত নির্বিশেষে সম্মান করারও অনুরোধ জানান তিনি।

“বঙ্গবন্ধু কিন্তু আওয়ামী লীগের না। যেদিন থেকে উনি বঙ্গবন্ধু হয়েছেন, সেদিন থেকে উনি সারা পৃথিবীর বাঙালিদের বঙ্গবন্ধু।”

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “পাকিস্তানে আমরা বঙ্গবন্ধুর নাম নিতে পেরেছি। কিন্তু স্বাধীন দেশে তার নাম মুখে আনতে পারিনি। স্বাধীনতাকে আমরা মূল্যায়ন করতে পারিনি।”

দেশের সব মানুষ একত্রিত থাকলে ৪৭ বছরে দেশটা সত্যিকারের সোনার বাংলা হয়ে যেত বলে করেন তিনি।

“এই দেশ স্বাধীন হয়েছিল, কারণ আমরা একত্রিত ছিলাম। আর পঁচাত্তরের পরে আমরা ভাগ ভাগ হয়ে গেলাম। রাজাকাররা কিন্তু ভাগ হয়নি। আমরা ভাগ হয়ে গেছি। এই ৪৭ বছরে দেশ সোনার বাংলা ঠিকই হত।”

তরুণ প্রজন্মকে কারও কথা না শুনে সঠিক ইতিহাস জানার আহ্বান জানান তিনি।

স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের গানগুলো গেয়ে তরুণ প্রজন্ম তা বাঁচিয়ে রাখবে বলেও আশা তার।

 

Leave a comment