২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: বিপ্র দাস বিশু বিত্রম

আমার সম্পর্কে : নির্বাহী সম্পাদক
প্রচ্ছদ বিভাগ অর্থনীতি

দরিদ্রদের জন্য এনজিও’র ৮৪ লাখ টাকা অনুদান

দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও পিছিয়ে পড়া হতদরিদ্রদের উন্নয়নে ৮৪ লাখ টাকা অনুদান দিয়েছে বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন (বিএনএফ)। প্রতিষ্ঠানটির ৩৪টি সহযোগী সংস্থাগুলোর মাধ্যমে হতদরিদ্রদের মাঝে এ অনুদানের অর্থ বিতরণ করা হবে। এ যাবৎ সর্বমোট ১২১.২৬ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের কনফারেন্স রুমে ২১৫তম প্রশিক্ষণ, অনুদান প্রদান ও পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ৩৪টি সহযোগী সংস্থাকে অনুদানের চেক হস্তান্তর করা হয়। বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, এ অনুদানের অর্থ সহযোগী সংস্থাগুলো হতদরিদ্রদের মাঝে সেলাই মেশিন প্রদান, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ, ছাগল, ভেড়া ও গাভী বিতরণ, ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে শিক্ষাবৃত্তি, স্কুল ড্রেস ও শিক্ষা উপকরণ প্রদান, চক্ষুসেবা প্রদান, নলকূপ স্থাপন, তাঁত শিল্পের উপকরণ বিতরণ, মাশরুম চাষ প্রশিক্ষণ ও উপকরণ বিতরণ, ভ্যানগাড়ি বিতরণ, লবণাক্ত ও আর্সেনিকমুক্তকরণ ফিল্টার বিতরণ, খরা ও লবণ সহনশীল জাতের ধানের বীজ বিতরণ, প্রতিবন্ধী পূনর্বাসন, গলদা চিংড়ি চাষ, থ্যালাসেমিয়া রোগীদের স্বাস্থ্যসেবা, প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা, নকশী কাঁথা তৈরিসহ ইত্যাদি কর্মসূচিতে বিতরণ করা হবে। ২১৫তম সভায় সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এ এফ এম ইয়াহিয়া চৌধুরী। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইনস্টিটিউট ফর ইনক্লুসিভ ফাইন্যান্স এন্ড ডেভেলপমেন্টের (আইএনএম) শিক্ষা বিভাগের পরিচালক সাব্বির আহমেদ চৌধুরী। এছাড়া বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সদর আলী বিশ্বাস, কর্মকর্তাবৃন্দ ও ৩৪টি সহযোগী সংস্থার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। ইনস্টিটিউট ফর ইনক্লুসিভ ফাইন্যান্স এন্ড ডেভেলপমেন্টের (আইএনএম) শিক্ষা বিভাগের পরিচালক সাব্বির আহমেদ চৌধুরী বলেন, কেবল হতদরিদ্রদের কিছু একটা দিয়ে সাহায্য করলেই হবে না। যে জিনিসটা দেওয়া হচ্ছে তা যেন ধরে রাখে এবং এটা হতে কিভাবে বৃদ্ধি করা যায় তা চিন্তা করতে হবে। সঙ্গে চিন্তা করতে হবে যাতে কর্মসূচি সাসটেইনেবল হয়। আর সাসটেইনেবল করতে হলে ক্রিয়েটিভিটি থাকতে হবে। বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এ এফ এম ইয়াহিয়া চৌধুরী বলেন, শুধু অর্থ দিয়ে কাজ হয় না। বিত্ত ও চিত্ত দু’টোই থাকতে হবে। উদ্ভাবনীমূলক কাজ করতে হবে এবং কাজকে টেকসই করতে হবে। বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সদর আলী বিশ্বাস বলেন, দেশের আর্থ-সামাজিক ও পিছিয়ে পড়া হতদরিদ্রদের উন্নয়নে এবং এসডিজি বাস্তবায়নে সকলকে একযোগে নিরলসভাবে কাজ করতে হবে। উল্লেখ্য, বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অধীন একটি স্ব-শাসিত প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটি দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্য সরকারের দেওয়া অর্থে দেশের জাতীয় পর্যায়ে এবং প্রত্যন্ত অঞ্চলে আঞ্চলিক ও স্থানীয় পর্যায়ে কর্মরত এনজিওসমূহের মাধ্যমে হতদরিদ্রদের মাঝে অনুদান দিয়ে থাকে। এ যাবৎ ১ হাজার ১২০টি সহযোগী সংস্থার মধ্যে বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন সর্বমোট ১২১.২৬ কোটি টাকা অনুদান দিয়েছে।

Leave a comment