২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: Limon Ahmed

আমার সম্পর্কে : প্রতিনিধি
প্রচ্ছদ বিভাগ সিলেট

এমসি কলেজে গণধর্ষণ: আদালতে আসেননি মামলার সাক্ষীরা

সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে বেঁধে স্ত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলার স্বাক্ষ্যগ্রহণের প্রথম দিনই আদালতে হাজির হননি কোনো স্বাক্ষী। স্বাক্ষীরা অনুপস্থিত থাকায় স্বাক্ষ্যগ্রহণের পরবর্তী তারিখ ২৭ জানুয়ারি ধার্য্য করেছেন আদালত।

আজ রবিবার সকাল ১১টায় সিলেটের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মোহিতুল হকের আদালতে এ তারিখ নির্ধারণ করা হয়। এসময় মামলার চার্জশিটভূক্ত ৮ আসামিকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করা হয়।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল পিপি রাশিদা সাঈদা খানম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি বলেন, বাদিপক্ষের আইনজীবী একই আদালতে এক সাথে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ ও চাঁদাবাজি মামলার বিচার কাজ শুরুর আবেদন করেন। কিন্তু বিচারক তা খারিজ করে দেন।

এর আগে গত ১৭ জানুয়ারি মামলার অভিযোগ গঠনের মাধ্যমে বিচারকার্য শুরু হয়।

আদালত আজ রবিবার প্রথম সাক্ষ্য গ্রহণের তারিখ নির্ধারণ করেছিলেন আদালত। এর আগে গত ৩ ডিসেম্বর সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আবুল কাশেমের আদালতে ৮ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য। এতে সাইফুর রহমানকে প্রধান করে ছয় জনের বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণে জড়িত থাকা এবং অপর দুই জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণে সহায়তার কথা উল্লেখ করা হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৫ সেপ্টেম্বর সিলেটের এমসি কলেজ ছাত্রবাসে স্বামীকে আটকে রেখে নববধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ করা হয়।ঘটনার রাতেই নির্যাতিতার স্বামী বাদী হয়ে নগরের শাহপরান থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন।

Leave a comment