২৪শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: shuddhobarta24@

আমার সম্পর্কে : This author may not interusted to share anything with others
প্রচ্ছদ বিভাগ সিলেট

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ নিয়ে হামলা স্বীকার আওয়ামীলীগ পরিবার

স্বাধীন বাংলাদেমের প্রতিষ্টাতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য নির্মানের পক্ষে কথা বলায় জামাত বিএনপির উগ্র সন্ত্রাসীরা আওয়ামীলীগের এক ত্যাগী নেতার পরিবারের উপর হামলা ও লুট-পাটের ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হলেও অভিযুক্ত কাউকে এখও গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ । ফলে অসহায় পরিবারটি দারুণ আতঙ্কে দিন যাপন করছে।

ঘটনাটি ঘটেছে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার ২নং খাজাঞ্চি ইউনিয়নের বায়নপুর গ্রামে। হামলাকারিরা গুরুত্বর জখমিদের ঘরে তালাবদ্ধ করেও রেখেছিল। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তালা ভেঙ্গে আহতদের উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করে। গুরুত্বর জখমি ৫জনের মধ্যে ৩জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা যায়।

খাজাঞ্চি ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ছিলেন বাওনপুর গ্রামের মো: ওয়ারিছ আলী। তিনি একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ি হলেও অত্যন্ত ত্যাগী কর্মী ছিলেন। বায়নপুর গ্রামের পূর্বপাশে তার একটি দোকান ও গ্রামীণ রেস্টুরেন্ট রয়েছে। গত ৩ ডিসেম্বর রাত অনুমান সাড়ে ৯টার সময় জামাত বিএনপি ক্ষতিপয় উগ্র যুবক তাদের দোকানে যায়। সেখানে ওয়ারিছ আলীর পুত্র দিলওয়ার হোসেন দোকানে বসা ছিল। তারা পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দোকানে প্রবেশ করে দিলওয়ার হোসেনকে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মানের পক্ষে না বিপক্ষে একথা জানতে চায়। তখন দেলোয়ার হোসেন জানায়, আমার পিতা আওয়ামীলীগ করে জীবন বিসর্জন দিয়েছেন। তাই আমি বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের পক্ষে। এভাবে ইতিবপূর্বেও কয়েকদিন জামাত বিএনপির কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে কটুক্তি করলে দেলোয়ার প্রতিবাদ জানিয়েছিল। সুযোগে সন্ত্রাসীরা দা, ডেগার, ছুরি, চাকু দিয়ে দেলোয়ারের উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে বাড়ি থেকে তার মা, ভাই-বোন এগিয়ে আসলে তাদের মারপিট করে জখম করে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়। এসময় দুটি দোকানে লুটপাট ভাংচুর ও একটি মোটর সাইকেল ক্ষতিগ্রস্থ করা হয়। পুলিশ ও স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থালে গিয়ে তালা ভেঙ্গে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

মৃত ওয়ারিছ আলীর পুত্র বাদি হয়ে বাওনপুর গ্রামের আব্দুল আলীর পুত্র আবুবক্কর, আলকাছ আলীর পুত্র আব্দুল্লাহ, মানিক মিয়ার পুত্র মিন্টু মিয়া মখলিছ মিয়ার পুত্র আজাদ মিয়া, আলতাব মিয়ার পুত্র সাকিল আহমদ, মৃত আব্দুন নুরের পুত্র আব্দুল বাছিত, মৃত আকরম আলীর পুত্র আলতাব মিয়া, আব্দুল আলীর পুত্র আবুল বাসার মৃত আকরম আলীর পুত্র সায়েস্তা মিয়া, আলতাব মিয়ার পুত্র জাকির আহমদকে আসামি করে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। (মামলা নং-০৩, তারিখ ৫/১২/২০২০ইং।

বিশ্বনাথ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এ এইচ এম ফিরোজ আলী এই হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে অভিলম্বে দোষিদের গ্রেফতারে দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের পক্ষে কথা বলায় এই ত্যাগী আওয়ামীলীগের পরিবারের উপর হামলার ঘটনা কোনভাবেই সহ্যকরা হবেনা।

খাজাঞ্চি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শংকর চন্দ্র ধর জানিয়েছেন, আওয়ামীলীগের পরিবারের উপর এধরনের হামলা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমি সরেজমিনে হাসপাতালে গিয়ে আহতদের দেখেছি। গুরুত্বর জখমিদের আর্তচিৎকারে যে কোন মানুষের চোখে কান্না আসবে।

Leave a comment