৮ই এপ্রিল, ২০২০ ইং , ২৫শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: shuddhobarta24@

আমার সম্পর্কে : This author may not interusted to share anything with others
প্রচ্ছদ বিভাগ আন্তর্জাতিক

একসঙ্গে ২ জনের বেশি জমায়েত নিষিদ্ধ : যুক্তরাজ্যে

অনলাইন ডেস্ক : যুক্তরাজ্যে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মোকাবিলায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। একই সঙ্গে দুজনের বেশি জমায়েতকেও নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার।  

গতকাল সোমবার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ৮টায় জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এ ঘোষণা দেন।

সারা দেশে লকডাউন ঘোষণা করে বরিস জনসন বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় শতাব্দীর সবচেয়ে ভয়ংকর ঝুঁকির সম্মুখীন  যুক্তরাজ্য। এই ভাইরাসের বিস্তার রুখতে না পারলে এক ভয়ানক পরিস্থিতির মুখোমুখি হবো আমরা।

তিনি বলেন, সকলের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াসে এই ভাইরাসের বিস্তৃতি এখনই  ঠেকাতে না পারলে এমন একটি সময় আসবে যখন বিশ্বের কোনো স্বাস্থ্য ব্যবস্থাই এই ভাইরাসের মোকাবিলা করতে পারবে না। কারণ, মানব মৃত্যুর হার তখন এমন পর্যায়ে পৌঁছবে যে চিকিৎসার জন্য ডাক্তার ও পর্যাপ্ত  নার্স, এমনকি ভেনটিলেট, ইনটেনসিভ বেড কিছুই আর পাওয়া যাবে না।

এ সময় জরুরি পণ্যসামগ্রী ও ওষুধ ক্রয় ছাড়া ঘরের বাইরে যেতে দেশের প্রতিটি নাগরিককে নিষেধ করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘একবার ব্যায়াম এবং জরুরি কাজ ছাড়া ঘরের বাইরে যাওয়া যাবে না।’

একসঙ্গে দুজনের বেশি জমায়েত নিষিদ্ধ ঘোষণা করে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, আইন ভঙ্গকারীদের জরিমানা করা হবে। কেউ এসব নির্দেশ অমান্য করলে পুলিশ ব্যবস্থা নিতে পারবে।

নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রীর দোকান ছাড়া অন্যান্য সব ধরনের দোকান অনতিবিলম্বে বন্ধের নির্দেশ দেন বরিস জনসন। তিনি বলেন, লাইব্রেরি, খেলার স্থান, ব্যায়ামাগার এমনকি উপাসনালয়ও বন্ধ থাকবে। তবে পার্ক খোলা থাকলেও জনসমাগম সীমিত থাকবে বলে জানান তিনি।

শেষকৃত্য ছাড়া সকল ধরনের সামাজিক অনুষ্ঠান, বিয়ে এবং ধর্মীয় সমাবেশও বন্ধ থাকবে বলে ঘোষণা দেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, তিন সপ্তাহ পর পরিস্থিতি বুঝে পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার পর্যন্ত যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৩৩৫ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৬৫০ জন।

Leave a comment