২৪শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং , ৯ই কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বার্তাটি লিখেছেন: Shuddho Barta

আমার সম্পর্কে : This author may not interusted to share anything with others
প্রচ্ছদ বিভাগ খেলাধুলা

টানা সাতটি ছয় হাঁকালেন নবি-জাদরান, ত্রিদেশীয় সিরিজে জিম্বাবোয়েকে হারাল আফগানিস্তান

টানা সাত বলে হাঁকালেন সাতটি ছক্কা। শেষ চার ওভারে তুললেন ৭৪ রান। মহম্মদ নবি ও নাজিবুল্লা জাদরানের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের সাক্ষী থাকল ঢাকার শের ই-বাংলা ন্যাশনাল স্টেডিয়াম। দুই ব্যাটসম্যানের ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে ত্রিদেশীয় টি-২০ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে জিম্বাবোয়েকে ২৮ রানে পরাজিত করল আফগানিস্তান।

অ্যাশেজের ভরা মরশুমে স্টিভ স্মিথের মহাকাব্যিক কামব্যাক নিয়ে যখন চর্চা তুঙ্গে, ঠিক সেই সময় বাংলাদেশের মাটিতে আপাত নিরীহ টি২০ সিরিজে যেন কিছুটা রঙ লাগালেন নবি-নাজিবুল্লা জুটি। প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে হারের পর এদিন টসে জিতে আফগানিস্তানকে প্রথমে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় জিম্বাবোয়ে। বেশ দুলকি চালেই চলছিল খেলা। কিন্তু ১৭তম ওভারে হঠাতই ব্যাট হাতে জ্বলে উঠলেন সদ্য টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানানো মহম্মদ নবি। ১৭তম ওভারে তেন্দাই চাতারার শেষ ৪টি বল গ্যালারিতে পাঠালেন অভিজ্ঞ আফগান ব্যাটসম্যান।

নবি থামতেই জ্বলে উঠল নাজিবুল্লা জাদরানের ব্যাট। ১৮তম ওভারে নেভিল মাদজিভার প্রথম তিনটি বলে এবার ছক্কা হাঁকালেন তিনি। টানা সাত বলে সাতটি ছয় হাঁকিয়ে ম্যাচে প্রাণের সঞ্চার করেন এই দুই আফগান ব্যাটসম্যান। পঞ্চম উইকেটে নবি-জাদরানের ব্যাটেই নির্ধারিত ২০ ওভারে জিম্বাবোয়েকে ১৯৮ রানের লক্ষ্যমাত্রা ছুঁড়ে দেয় আফগানিস্তান। শেষ ৪ ওভারে ৭৪ রানের পাশাপাশি পঞ্চম উইকেটে এই দুই আফগান ব্যাটসম্যান ১০৭ রানের অবদান রাখেন। ৩০ বলে ৫টি চার ও ৬টি ছক্কার সাহায্যে বিধ্বংসী ৬৯ রানের ইনিংস খেলেন জাদরান। পাশাপাশি ৪ ছক্কায় ১৮ বলে ধুন্ধুমার ৩৮ রানের ইনিংস আসে নবির ব্যাট থেকে।

জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৬৯ রানেই থমকে যায় জিম্বাবোয়ের ইনিংস। ২৮ রানে জয়লাভ করে আফগানরা। জিম্বাবোয়ের হয়ে ২২ বলে সর্বোচ্চ ৪২ রানের ইনিংস খেলেন রেগিস চাকাবভা। আফগানিস্তানের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন ফরিদ আহমেদ ও অধিনায়ক রশিদ খান। ১টি করে উইকেট পান করিম জানাত ও গুলবাদিন নইব। একমাত্র টেস্টে বাংলাদেশকে পরাজিত করার পর টি-২০ সিরিজেও জয় দিয়ে অভিযান শুরু করল রশিদের দল। রবিবার সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে আয়োজক বাংলাদেশের মুখোমুখি হবে তারা।

Leave a comment